1. sheikhrobirobi008@gmail.com : dailynayakontho :
  2. admin@dailynayakontho.com : unikbd :
মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ০৩:০৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক সোসাইটি (বিএমএসএস) এর অপপ্রচার বন্ধের আহ্বান। ডেইলি নয়া কণ্ঠ আমের রাজধানী রাজশাহীতে জমে উঠেছে আমের বাজার। ডেইলি নয়া কণ্ঠ রাজশাহীতে রিমালের কারণে  হচ্ছে তীব্র ঝড়বৃষ্টি। ডেইলি নয়া কণ্ঠ বালিয়াকান্দিতে প্রতিপক্ষের হামলায় অসহায় নারীর ঘর ভাংচুরের অভিযোগ। ডেইলি নয়া কণ্ঠ মদন উপজেলার উন্নয়নে ভূমিকা রাখতে চাই, চেয়ারম্যান প্রার্থী মমতাজ হোসেন চৌধুরী। ডেইলি নয়া কণ্ঠ পাংশায় মাদকসহ গ্রেপ্তার-৪। ডেইলি নয়া কণ্ঠ পবা উপজেলা নির্বাচন উপলক্ষ্যে আরএমপির নোটিশ। ডেইলি নয়া কণ্ঠ মতিহার থানা পুলিশের মিথ্যা মামলা থেকে বাঁচতে ভুক্তভোগী পরিবারের সংবাদ সম্মেলন। ডেইলি নয়া কণ্ঠ রাজশাহীতে ড্রেন থেকে বিচ্ছিন্ন পা উদ্ধার। ডেইলি নয়া কণ্ঠ বিজ্ঞান কুইজ প্রতিযোগিতায় জাতীয় পর্যায়ে নির্বাচিত তিলকপুর উচ্চ বিদ্যালয়। ডেইলি নয়া কণ্ঠ

শেরপুরে শীত ও কুয়াশায় নষ্ট হচ্ছে বোর ধানের বীজতলা। নয়া কণ্ঠ

  • প্রকাশিতঃ মঙ্গলবার, ১৬ জানুয়ারী, ২০২৪
  • ৪৫ বার পঠিত

শেরপুরে শীত ও কুয়াশায় নষ্ট হচ্ছে বোর ধানের বীজতলা।

মোঃ আমিনুল ইসলাম শেরপুর প্রতিনিধি।

সারা দেশের ন্যায় শেরপুর জেলায়ও শীতের তীব্রতা বেড়েছে। এতে নানা সংকটে পড়েছেন কৃষকরা। অতিরিক্ত ঠান্ডা ও কুয়াশায় নষ্ট হয়ে যাচ্ছে বোরো ধানের বীজতলা। অনেক স্থানেই বীজতলা একধরনের ছত্রাকে আক্রান্ত হচ্ছে। এতে চারার বৃদ্ধি ব্যাহত হচ্ছে এবং অনেক ক্ষেত্রে তা নষ্ট হয়ে যাচ্ছে।

শীতের কারণে মাঠে কাজ করতে পারছে না কৃষক। দেখা দিয়েছে কৃষি শ্রমিকের সঙ্কট। ফলে পিছিয়ে যাচ্ছে বোরো ধানের আবাদ।

চলতি মৌসুমে শেরপুর জেলায় ৯১ হাজার ৯৪০ হেক্টর জমিতে বোরো ধান চাষের লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করা হয়েছে। এজন্য ৪ হাজার ৮৯৯ হেক্টর জমিতে বিভিন্ন জাতের বোরো ধানের বীজতলা তৈরি করা হয়েছে। ইতিমধ্যে জেলায় পৌনে ৫ হাজার হেক্টর জমিতে বোরো ধানের চারা রোপণের কাজ শেষ হয়েছে।

চরশেরপুরের কৃষক নাজির আহমেদ বলেন, ‘শীতে চারা নষ্ট হয়ে যাইতাছেগা। জমি নাগাবার পাইতাছি না। নামলে বাতে জমিতে বোরোধান লাগাইলে কাটার সময় তো রিক্সের মধ্যে পইড়া জামুগা।’

পরানপুরের কৃষক ফজলুল হক বলেন, ‘আমন ধান কাইটা সরিষার আবাদ করছি। সরিষা তুইলা বোরোধান চাষ করমু। কিন্তু জালা (চারা) নষ্ট হইয়া যাইতাছেগা। কীটনাশক দিতাছি, সেচ দিতাছি কোনো কামই হইতাছে না। এবার বোরো ফসল করমু কেমনে।’

এ ব্যাপারে শেরপুর জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত উপপরিচালক (শস্য) মোহাম্মদ সফিকুল ইসলাম বলেন, ‘ছত্রাকনাশক কীটনাশক ছিটানোর জন্য কৃষকদের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। আর বীজতলায় সন্ধ্যায় সেচ দিয়ে সকালে নিয়মিত পানি বের করে দেওয়াসহ নানা পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছে আমাদের লোকজন।’

শেয়ারঃ

এই জাতীয় অন্যান্য সংবাদ
২০২৩ © সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Developed By UNIK BD