1. sheikhrobirobi008@gmail.com : dailynayakontho :
  2. admin@dailynayakontho.com : unikbd :
সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১২:১৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
পাংশায় মাদকসহ গ্রেপ্তার-৪। ডেইলি নয়া কণ্ঠ পবা উপজেলা নির্বাচন উপলক্ষ্যে আরএমপির নোটিশ। ডেইলি নয়া কণ্ঠ মতিহার থানা পুলিশের মিথ্যা মামলা থেকে বাঁচতে ভুক্তভোগী পরিবারের সংবাদ সম্মেলন। ডেইলি নয়া কণ্ঠ রাজশাহীতে ড্রেন থেকে বিচ্ছিন্ন পা উদ্ধার। ডেইলি নয়া কণ্ঠ বিজ্ঞান কুইজ প্রতিযোগিতায় জাতীয় পর্যায়ে নির্বাচিত তিলকপুর উচ্চ বিদ্যালয়। ডেইলি নয়া কণ্ঠ রাজশাহী মহানগর প্রেসক্লাবের অনুষ্ঠানে বক্তারা: পেশাগত স্বার্থে সাংবাদিকদের ঐক্যবব্ধ হতে হবে। ডেইলি নয়া কণ্ঠ মেহেরপুর সদর উপজেলার বুড়িপোতা ইউনিয়ন পরিষদের উন্মুক্ত বাজেট ঘোষনা। ডেইলি নয়া কণ্ঠ সর্বজনীন পেনশন স্কিম প্রত্যাহারের দাবিতে বশেফমুবিপ্রবি শিক্ষকদের মানববন্ধন। ডেইলি নয়া কণ্ঠ বঙ্গমাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে অফ গ্রিড সোলার সিস্টেম উদ্বোধন। ডেইলি নয়া কণ্ঠ সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের চিত্রকর্ম নিয়ে প্রদর্শনী। ডেইলি নয়া কণ্ঠ

ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান থেকে এমপি। নয়া কণ্ঠ

  • প্রকাশিতঃ বৃহস্পতিবার, ১১ জানুয়ারী, ২০২৪
  • ৭৮ বার পঠিত

ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান থেকে এমপি।

মোঃআমিনুল ইসলাম শেরপুর প্রতিনিধি।

ইউপি চেয়ারম্যান থেকে এমপি নির্বাচিত হয়ে আলোচনার এসেছেন শেরপুর-৩ (শ্রীবরদী-ঝিনাইগাতী) আসনের এডিএম শহিদুল ইসলাম। শ্রীবরদী সরকারি কলেজ থেকে ছাত্রলীগের রাজনীতি দিয়েই পথচলা শুরু নবনির্বাচিত এই এমপির। এরপর ইউপি চেয়ারম্যান থেকে ধাপে ধাপে উঠে এসে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী হন। নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে পাঁচজন প্রার্থীকে বিপুল ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করে বিজয়ী হয়েছেন শহিদুল ইসলাম।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, শ্রীবরদী উপজেলার মাদারপুর গ্রামের বাসিন্দা। তিনি ওই গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলামের ছেলে। ছাত্রজীবনে ছাত্রলীগের রাজনীতি করেছেন। পরে তিনি শেরপুরের শ্রীবরদী উপজেলা আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়ান। সর্বশেষ শ্রীবরদী উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন।

সংসদ সদস্য পদে নির্বাচিত শহিদুল ইসলাম বিগত ২০০৩ থেকে ২০১১ পর্যন্ত এবং ২০১৬ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত শ্রীবরদী উপজেলার খড়য়া কাজিরচর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ছিলেন। ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের পদ থেকে পদত্যাগ করেন এবং দল থেকে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য মনোনয়ন চান। কিন্তু দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে ২০১৯ সালে শ্রীবরদী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।

উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর দলের কাছে ক্ষমা চেয়ে সাধারণ ক্ষমার আওতায় আবার আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে ফিরে আসেন। একই সঙ্গে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে শ্রীবরদী ও ঝিনাইগাতী উপজেলার ব্যাপক গণসংযোগ শুরু করেন। এলাকায় পোস্টারিং সভা-সমাবেশ ও গেট নির্মাণ করে ভোটারদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

এরপর দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে শেরপুর-৩ আসনের প্রার্থী হিসেবে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চেয়ে নৌকা প্রতীকের মনোনয়ন পাওয়ার পর শ্রীবরদী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের পদ থেকে পদত্যাগ করেন।

এডিএম শহিদুল ইসলাম শেরপুর-৩ আসন থেকে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের মনোনয়ন পেয়ে ১ লাখ ২ হাজার ৪৪৬ ভোট পেয়ে সংসদ সদস্য পদে বিজয়ী হন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন আওয়ামী লীগের ঝিনাইগাতী উপজেলা শাখার সভাপতি ট্রাক প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী এসএম আব্দুল্লাহেল ওয়ারেজ নাইম। নাইম পেয়েছেন ৪৬ হাজার ২২৮ ভোট।

এমপি নির্বাচিত হয়ে এডিএম শহিদুল ইসলাম বলেন, ‘আমি তৃণমূলের নেতা-কর্মী ও সাধারণ মানুষের কাতারের একজন মানুষ। তৃণমূল মানুষের চাওয়াটাকেই গুরুত্ব দিয়ে কাজ করব।’

শেয়ারঃ

এই জাতীয় অন্যান্য সংবাদ
২০২৩ © সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Developed By UNIK BD