1. sheikhrobirobi008@gmail.com : dailynayakontho :
  2. admin@dailynayakontho.com : unikbd :
বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৩:২৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
রাজবাড়ি বালিয়াকান্দীতে শান্তি ও সম্প্রীতি সমাবেশ অনুষ্ঠিত। ডেইলি নয়া কণ্ঠ তীব্র তাপদাহে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথে কমেছে যাত্রী ও যানবাহন। ডেইলি নয়া কণ্ঠ ভূমি দস্যুদের অত্যাচার ও প্রাণনাশের হুমকি থেকে বাচঁতে নেত্রকোণা থানায় অসহায় মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রীর আবেদন। ডেইলি নয়া কণ্ঠ গুল বিষ্ণুপ্রিয়া আশ্রমে টাকা আত্মসাৎ এর অভিযোগ উঠেছে। ডেইলি নয়া কণ্ঠ রূপগঞ্জে ডাকাতির সময় গ্রেফতার ১। ডেইলি নয়া কণ্ঠ রূপগঞ্জে প্রিপেইড মিটার বন্ধের দাবিতে মহাসড়ক অবরোধ। ডেইলি নয়া কণ্ঠ তাপদাহে পুড়ছে পোরশা বাসি। ডেইলি নয়া কণ্ঠ গোদাগাড়ীতে ৬ কেজি ৫০০ গ্রাম হেরোইনসহ মাদক কারবারি গ্রেফতার।ডেইলি নয়া কণ্ঠ জয়পুরহাটে বৃষ্টির আশায় ইসতিস্কার নামাজ আদায়। ডেইলি নয়া কণ্ঠ রাজশাহী মহানগরীতে বিএসটিআই এর অভিযানে ৩ টি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা।                                                            _____________________________________(২৪ এপ্রিল ) বুধবার  রাজশাহী ব্যুরো বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস এন্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশন (বিএসটিআই) বিভাগীয় কার্যালয়, রাজশাহী’র উদ্যোগে আজ ২৪ এপ্রিল বুধবার রাজশাহী মহানগরীতে একটি সার্ভিল্যান্স অভিযান পরিচালিত হয়। এতে বিএসটিআই’র গুণগত মানসনদ গ্রহণ না করে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে শিশুখাদ্য‘আর্টিফিশিয়াল ফ্লেভার্ড ড্রিংকস ও আইস ললি’ উৎপাদন ও বিক্রয়-বিতরণ করায় এবং মোড়কে/লেবেলে অবৈধভাবে বিএসটিআই এর মানচিহ্ন সম্বলিত মনোগ্রাম ব্যবহার করায় সিটি হাটের পশ্চিমে ওবাই এর মোড় সংলগ্ন মেসার্স তৃপ্তি কেমিক্যাল এন্ড ফুড ইন্ডাস্ট্রিজ হতে প্রায় ২০ হাজার পিস ‘আর্টিফিশিয়াল ফ্লেভার্ড ড্রিংকস ও আইস ললি’ এবং তিন লক্ষ পিস লেবেল/প্যাকেট জব্দ করা হয়। সেই সাথে উৎপাদনে ব্যবহৃত অবৈধ ও নন-ফুডগ্রেড রং ও ফ্লেভার জব্দ করা হয় এবং প্রতিষ্ঠানটির সত্ত্বাধিকারী মোঃ শামীম রেজার বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা দায়েরের কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়। একই সাথে কারখানা টি বন্ধ করে দেওয়া হয়। একই অপরাধে মহানগরীর রামচন্দ্রপুর এলাকায় অবস্থিত মেসার্স ক্রিস্টাল এন্টারপ্রাইজ হতে প্রায় ৪০ হাজার পিস ‘আইস ললি’ জব্দ করা হয়। সেই সাথে প্রতিষ্ঠানটির সত্ত্বাধিকারী মোঃ শফিকুল আলমের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা দায়েরের কার্যক্রম গ্রহণ করা হয় এবং কারখানাটি বন্ধ করে দেওয়া হয়। এছাড়া বিসিক শিল্প নগরীতে অবস্থিত জে.কে ফুড প্রোডাক্টস প্রতিষ্ঠানটি বিএসটিআই’র গুণগত মানসনদ গ্রহণ না করে অবৈধভাবে ‘সফট ড্রিংকস পাউডার’ বিক্রয়-বিতরণ করায় এবং মোড়কে/লেবেলে অবৈধভাবে বিএসটিআই এর মানচিহ্ন সম্বলিত মনোগ্রাম ব্যবহার করায় ০৬ কার্টুন ‘সফট ড্রিংকস পাউডার’ জব্দ করা হয় এবং নিয়মিত মামলা দায়েরের কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়। উক্ত সার্ভিল্যান্স অভিযানটি পরিচালনা করেন বিএসটিআই বিভাগীয় কার্যালয়, রাজশাহী এর কর্মকর্তা  মোঃ শরীফ হোসেন ও  প্রকৌশলী জুনায়েদ আহমেদ। জনস্বার্থে বিএসটিআই, রাজশাহীর এধরণের অভিযান নিয়মিতভাবে অব্যাহত থাকবে বলে কর্মকর্তারা জানান। ডেইলি নয়া কণ্ঠ

রাজবাড়ীতে অবৈধ ইট ভাঁটার পাহাড়, নিরব পরিবেশ অধিদপ্তর ! নয়া কণ্ঠ

  • প্রকাশিতঃ মঙ্গলবার, ২৬ ডিসেম্বর, ২০২৩
  • ৩৪ বার পঠিত

রাজবাড়ীতে অবৈধ ইট ভাঁটার পাহাড়,নিরব পরিবেশ অধিদপ্তর!

সুজন খন্দকার,স্টাফ রিপোর্টার ঃ রাজবাড়ীতে লাগামহীন ভাবে গড়ে ওঠা, অবৈধ ইটের ভাঁটা গুলো চলছে বছরের পর বছর। এই জেলাতে মোট ৮৮টি ইটের ভাটা থাকলেও নিবন্ধিত ইটের ভাটার সংখ্যা মাত্র ১২ থেকে ১৫ টি। বাকী ৭৩টি ইটের ভাঁটার বেশিরভাগেই নেই কোন সরকারী লাইসেন্স বা পরিবেশের অনুমোদন। তারপরও চলছে এসব ইটের ভাটা । অভিযোগ রয়েছে স্থানীয় প্রশাসন ও পরিবেশ অধিদপ্তরকে ভিন্ন কায়দায় মেনেজ করে চলছে অবৈধ এসব ইটের ভাটা। অবৈধ অনুমোদন বিহীন এসব ইটের ভাটায়, ইট পুড়ানোর কাজে দিব্যি ব্যবহার করা হচ্ছে পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষাকারী গাছ। শুধু তাই নয়, ইট তৈরীতে ব্যবহার করা হচ্ছে তিন ফসলি জমির মাটি। এতে একদিকে ধ্বংস হচ্ছে শত-শত বিঘা আবাদি তিন ফসলি জমি অন্যদিকে পরিবেশ রক্ষাকারী গাছপালা। এতে অবশ্য কোন প্রকার মাথা ব্যাথা নেই পরিবেশ অধিদপ্তরের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের। ফলে সৃষ্টি হচ্ছে অতিরিক্ত বায়ু দূষণ। তাতে সাধারণ মানুষ আক্রান্ত হচ্ছে শাসকষ্ট, ক্যান্সার ,জন্ডিস,সহ নানা ধরনের দুরারোগ্য ব্যধিতে।

তবে কথা বলছেন এলাকাবাসী ও শুশীল সমাজের ব্যক্তিরা। তারা বলছেন, প্রতিবছর ইট পুরানোর সীজনের শুরুতে লোক দেখানোর দুই একটি ভাটায় অভিযান পরিচালনা করে পরিবেশ অধিদপ্তর। কিন্তু স্থায়ী ভাবে অবৈধ এসব ইটের ভাটা বন্ধে কার্যকর কোন উদ্যোগ নেয় না পরিবেশ অধিদপ্তর।

এবিষয়ে রাজবাড়ীর জেলা প্রশাসন আবু কায়সার খান’কে বার বার ০১৭৩৩৩৩৬৪০০ এই নাম্বারে ফোন দেওয়া হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেনি। তবে কথা বলছেন,পরিবেশ অধিদপ্তরের ফরিদপুর অঞ্চলের উপপরিদর্শক সাঈদ আনোয়ার। তিনি বলেন,আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন কারণে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা নির্বাচন নিয়ে ব্যস্ত থাকায় অবৈধ ইটের ভাটাগুলোর বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করা আপাদত সম্ভব হচ্ছে না। নির্বাচন শেষ হলে অবৈধ প্রতিটি ইটের ভাটার বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালিত হবে। প্রশ্ন করা হয়েছিলো, ইটের ভাটার মালিকরা বলছে তারা পরিবেশ অধিদপ্তরকে মেনেজ করেছে। এমনন প্রশ্নের জবাবে সাইদ আনোয়ার জানান, ভাটা মালিকেরা নিজেদের বাঁচানোর এসব মিথ্যা কথা বলেন, যার ভিত্তি নেই।

এযেন সরিষার মধ্যেই ভুত, একদিকে ভাটা মালিকরা বলছে পরিবেশ অধিদপ্তর সহ সবাইকে ম্যানেজ করে তারা চালাচ্ছে ইটের ভাঁটা। অন্যদিকে পরিবেশ অধিদপ্তর সহ ভাটা সংশ্লিষ্ট দপ্তরের সবাই বলছে অবৈধ এসব ইটের ভাটা  কেমনে চলছে এবিষয়ে কিছুই জানা নেই তাদের। তাহলে প্রশ্ন? থেকেই যায়, অবৈধ এসব ইটের ভাঁটা কাদের ইশারায় চলছে।

শেয়ারঃ

এই জাতীয় অন্যান্য সংবাদ

রাজশাহী মহানগরীতে বিএসটিআই এর অভিযানে ৩ টি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা।                                                            _____________________________________(২৪ এপ্রিল ) বুধবার  রাজশাহী ব্যুরো বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস এন্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশন (বিএসটিআই) বিভাগীয় কার্যালয়, রাজশাহী’র উদ্যোগে আজ ২৪ এপ্রিল বুধবার রাজশাহী মহানগরীতে একটি সার্ভিল্যান্স অভিযান পরিচালিত হয়। এতে বিএসটিআই’র গুণগত মানসনদ গ্রহণ না করে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে শিশুখাদ্য‘আর্টিফিশিয়াল ফ্লেভার্ড ড্রিংকস ও আইস ললি’ উৎপাদন ও বিক্রয়-বিতরণ করায় এবং মোড়কে/লেবেলে অবৈধভাবে বিএসটিআই এর মানচিহ্ন সম্বলিত মনোগ্রাম ব্যবহার করায় সিটি হাটের পশ্চিমে ওবাই এর মোড় সংলগ্ন মেসার্স তৃপ্তি কেমিক্যাল এন্ড ফুড ইন্ডাস্ট্রিজ হতে প্রায় ২০ হাজার পিস ‘আর্টিফিশিয়াল ফ্লেভার্ড ড্রিংকস ও আইস ললি’ এবং তিন লক্ষ পিস লেবেল/প্যাকেট জব্দ করা হয়। সেই সাথে উৎপাদনে ব্যবহৃত অবৈধ ও নন-ফুডগ্রেড রং ও ফ্লেভার জব্দ করা হয় এবং প্রতিষ্ঠানটির সত্ত্বাধিকারী মোঃ শামীম রেজার বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা দায়েরের কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়। একই সাথে কারখানা টি বন্ধ করে দেওয়া হয়। একই অপরাধে মহানগরীর রামচন্দ্রপুর এলাকায় অবস্থিত মেসার্স ক্রিস্টাল এন্টারপ্রাইজ হতে প্রায় ৪০ হাজার পিস ‘আইস ললি’ জব্দ করা হয়। সেই সাথে প্রতিষ্ঠানটির সত্ত্বাধিকারী মোঃ শফিকুল আলমের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা দায়েরের কার্যক্রম গ্রহণ করা হয় এবং কারখানাটি বন্ধ করে দেওয়া হয়। এছাড়া বিসিক শিল্প নগরীতে অবস্থিত জে.কে ফুড প্রোডাক্টস প্রতিষ্ঠানটি বিএসটিআই’র গুণগত মানসনদ গ্রহণ না করে অবৈধভাবে ‘সফট ড্রিংকস পাউডার’ বিক্রয়-বিতরণ করায় এবং মোড়কে/লেবেলে অবৈধভাবে বিএসটিআই এর মানচিহ্ন সম্বলিত মনোগ্রাম ব্যবহার করায় ০৬ কার্টুন ‘সফট ড্রিংকস পাউডার’ জব্দ করা হয় এবং নিয়মিত মামলা দায়েরের কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়। উক্ত সার্ভিল্যান্স অভিযানটি পরিচালনা করেন বিএসটিআই বিভাগীয় কার্যালয়, রাজশাহী এর কর্মকর্তা  মোঃ শরীফ হোসেন ও  প্রকৌশলী জুনায়েদ আহমেদ। জনস্বার্থে বিএসটিআই, রাজশাহীর এধরণের অভিযান নিয়মিতভাবে অব্যাহত থাকবে বলে কর্মকর্তারা জানান। ডেইলি নয়া কণ্ঠ

২০২৩ © সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Developed By UNIK BD