1. sheikhrobirobi008@gmail.com : dailynayakontho :
  2. admin@dailynayakontho.com : unikbd :
রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:২০ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
সুদ থেকে বাঁচাতে কর্জে হাসানা নিয়ে অসহায় মানুষের পাশে শেখ আনছার উদ্দিন স্মৃতি ফাউন্ডেশন। নয়া কণ্ঠ মেহেরপুরের গাংনীতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে এক কৃষকের মৃত্যু। নয়া কণ্ঠ সাভারে ছুরিকাঘাতে যুবক নিহত। নয়া কণ্ঠ মনোহরদী-বেলাব উপজেলা বিএনপির ঈদ পূণর্মিলনী অনুষ্ঠান পালিত। নয়া কণ্ঠ নাটোরের সিংড়ায় পুকুরের পানিতে ডুবে ২ বোনের  আকষ্মিক মৃত্যু। নয়া কণ্ঠ রাজশাহীর টিবিপুকুর গণহত্যা দিবস। নয়া কণ্ঠ আসন্ন পহেলা বৈশাখ উপলক্ষ্যে আর এম পি’র নোটিশ। নেত্রকোণায় ‘শিকড় সোসাইটি’ নামক একটি অরাজনৈতিক ও সমাজসেবা মূলক সংগঠনের যাত্রা শুরু। নয়া কণ্ঠ রূপগঞ্জের ৩ বন্ধু নরসিংদী বেড়াতে গিয়ে নিহত। নয়া কণ্ঠ রাজশাহীতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৩। নয়া কণ্ঠ

জম্বি ড্রাগ তথা ট্রাঙ্ক নামক মাদক হতে ভবিষ্যৎ প্রজন্ম কে রক্ষার সতর্কবার্তা। নয়া কণ্ঠ

  • প্রকাশিতঃ বৃহস্পতিবার, ২৩ নভেম্বর, ২০২৩
  • ৬৪ বার পঠিত

জম্বি ড্রাগ তথা ট্রাঙ্ক নামক মাদক হতে ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে রক্ষার সতর্কবার্তা

________ রাজশাহী ব্যুরো

মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর,বিভাগীয় কার্যালয়, রাজশাহী কর্তৃক ‘জম্বি ড্রাগ ‘ নামক এক ভয়ঙ্কর মাদকের তথ্য প্রকাশ পেয়েছে । এই মাদক ব্যাবহারে মাংসপেশির পচন সৃষ্টিকারী ‘ জম্বি ড্রাগ ‘ আমেরিকায় ট্রাংক উপনামে পরিচিত । এই মাদকটি মানবদেহে মারাত্মক ইনফেকশন ,দৃষ্টিভ্রম এমনকি মৃত্যুও ঘটাতে পারে । ট্রাংক অল্প পরিমাণে সেবন করলে সেবনকারী কিছু সময়ের জন্য বাস্তব ভুলে চলে যান অন্য কোনো জগতে , বিচরণ করেন তার কল্পনায় । কিছু সামান্য বেশি সেবনে মৃত্যু নিশ্চিত হয়ে পড়ে । ট্রাংক বা জম্বি ড্রাগ মূলত জায়লজিন নামে পরিচিত একটি ড্রাগ যা পশুদের বিশেষ করে ঘোড়ার চেতনানাশক হিসেবে ব্যবহূত হয় । এটি ফেন্টানিল, হিরোইন, কোকেন ছাড়াও আরো কিছু মাদকের সাথে মেশানো হয় সেগুলোর প্রভাব ও স্থায়িত্বকে বাড়ানোর জন্য । জম্বি ড্রাগ তথা ট্রাংক এর ধ্বংসাত্মক দিক হলো এটি ত্বক, পেশী, রক্তনালী এবং শরীরের প্রধান প্রধান অঙ্গগুলোর মারাত্মক ক্ষতিসাধন করে । ট্রাংক সেবনকারীদের শরীরে নিরাময় অযোগ্য ক্ষত সৃষ্টি হয় যা ব্যাকটেরিয়া ও ফাঙ্গাস সংক্রমিত হয়ে গাংগারিন হয়ে যায় । কিছু কিছু ট্রাংক সেবনকারীদের মনোবৈকল্য দেখা যায় । তারা কেউ আগ্রাসী আচরণ করে আবার কারো মতিভ্রম হতে পারে । ট্রাংক মানুষের স্নায়ুর এমনভাবে ক্ষতি করে যা হৃদস্পন্দন এবং শাসপ্রশ্বাসকে কমিয়ে দিতে পারে যার ফলে সেবনকারীদের মৃত্যু পর্যন্ত ঘটতে পারে । ট্রাংকের চিকিৎসা দূরহ হতে পারে কারণ অতিরিক্ত সেবনে উত্তেজনা প্রশমনে যে নারকান’ ইনজেকশন প্রয়োগ করতে হয় তাও ট্রাংকের চিকিৎসায় কাজ করে না ।
একটি মারাত্মক বিষয়ের আশঙ্কা হলো অনেক সেবনকারীরা নিজেরাও জানেনা যে, তারা ট্রাংক সেবন করছে কারণ অনেক ক্ষেত্রেই এটি সেবনকারীর অজান্তে অন্যান্য মাদকের সাথে মিশিয়ে দেওয়া হচ্ছে । ট্রাঙ্ক মানবদেহে ব্যাবহারের জন্য অনুমোদিত নয় , এটি বড় পশু যেমন ঘোড়ার চেতনানাশক কাজে ব্যবহূত হয় । সিডিসির তথ্যমতে ট্রাঙ্ক এর মাত্রাতিরিক্ত সেবনের কারণে ২০১৮ সালের তুলনায় ২০২৩ সালে মৃত্যুহার ৩৫ গুন বৃদ্ধি পেয়েছে । এই মাদকে মাত্রাতিরিক্ত সেবনে প্রতি ৫ মিনিটে একজন মৃত্যুবরণ করছে । অনেকক্ষেত্রে চিকিৎসকরা এই ট্রাঙ্ক এর সাথে পরিচিত নন আবার ট্রাঙ্ক এর চিকিৎসায় পর্যাপ্ত সরঞ্জাম চিকিৎসকদের কাছে নাই । ট্রাংক ব্যাবসায়ীরা এতটাই হিংস্র যে তারা যে কোনো উপায়ে এই মাদক ব্যাবসা চালিয়ে যেতে চাই ।
আমেরিকা বিশ্বের সবচেয়ে বেশি সংখ্যক অভিবাসীর একটি দেশ । ফলে এই ভয়ঙ্কর মাদকটি পৃথিবীর অন্যান্য দেশে ছড়িয়ে পড়া সময়ের অপেক্ষা মাত্র , বাংলাদেশ এর ব্যাতিক্রম নয় । আমেরিকায় প্রায় আড়াই লাখের বেশি বাংলাদেশী ও বাংলাদেশী বংশোভূত অভিবাসী রয়েছে । এ বিপুল সংখ্যক প্রবাসীর যাতায়াত ছাড়াও বিভিন্ন কারণে বাংলাদেশ – আমেরিকার অর্থনৈতিক যোগাযোগ ভালো । তাই ট্রাংক নামিয়ে মাদকটি বাংলাদেশে সহজেই প্রবেশ করতে পারে । সম্প্রতি বাংলাদেশ ও ভারতের গণমাধ্যমে জম্বি ড্রাগ তথা ট্রাঙ্ক নামক নতুন মাদকটির বিষয়ে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে । ট্রাঙ্ক এর বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধি ও এর ভয়াবহতাকে প্রতিহত করার জন্য দেশের আপামর জনসাধারণকে তৎপর হতে হবে । যাতে আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্ম ধ্বংস না হয়ে যায় সে বিষয়ে প্রশাসনের পাশাপাশি জনগণকে সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে ।

শেয়ারঃ

এই জাতীয় অন্যান্য সংবাদ
২০২৩ © সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Developed By UNIK BD