1. sheikhrobirobi008@gmail.com : dailynayakontho :
  2. admin@dailynayakontho.com : unikbd :
বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৩:৪৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
রাজবাড়ি বালিয়াকান্দীতে শান্তি ও সম্প্রীতি সমাবেশ অনুষ্ঠিত। ডেইলি নয়া কণ্ঠ তীব্র তাপদাহে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথে কমেছে যাত্রী ও যানবাহন। ডেইলি নয়া কণ্ঠ ভূমি দস্যুদের অত্যাচার ও প্রাণনাশের হুমকি থেকে বাচঁতে নেত্রকোণা থানায় অসহায় মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রীর আবেদন। ডেইলি নয়া কণ্ঠ গুল বিষ্ণুপ্রিয়া আশ্রমে টাকা আত্মসাৎ এর অভিযোগ উঠেছে। ডেইলি নয়া কণ্ঠ রূপগঞ্জে ডাকাতির সময় গ্রেফতার ১। ডেইলি নয়া কণ্ঠ রূপগঞ্জে প্রিপেইড মিটার বন্ধের দাবিতে মহাসড়ক অবরোধ। ডেইলি নয়া কণ্ঠ তাপদাহে পুড়ছে পোরশা বাসি। ডেইলি নয়া কণ্ঠ গোদাগাড়ীতে ৬ কেজি ৫০০ গ্রাম হেরোইনসহ মাদক কারবারি গ্রেফতার।ডেইলি নয়া কণ্ঠ জয়পুরহাটে বৃষ্টির আশায় ইসতিস্কার নামাজ আদায়। ডেইলি নয়া কণ্ঠ রাজশাহী মহানগরীতে বিএসটিআই এর অভিযানে ৩ টি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা।                                                            _____________________________________(২৪ এপ্রিল ) বুধবার  রাজশাহী ব্যুরো বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস এন্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশন (বিএসটিআই) বিভাগীয় কার্যালয়, রাজশাহী’র উদ্যোগে আজ ২৪ এপ্রিল বুধবার রাজশাহী মহানগরীতে একটি সার্ভিল্যান্স অভিযান পরিচালিত হয়। এতে বিএসটিআই’র গুণগত মানসনদ গ্রহণ না করে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে শিশুখাদ্য‘আর্টিফিশিয়াল ফ্লেভার্ড ড্রিংকস ও আইস ললি’ উৎপাদন ও বিক্রয়-বিতরণ করায় এবং মোড়কে/লেবেলে অবৈধভাবে বিএসটিআই এর মানচিহ্ন সম্বলিত মনোগ্রাম ব্যবহার করায় সিটি হাটের পশ্চিমে ওবাই এর মোড় সংলগ্ন মেসার্স তৃপ্তি কেমিক্যাল এন্ড ফুড ইন্ডাস্ট্রিজ হতে প্রায় ২০ হাজার পিস ‘আর্টিফিশিয়াল ফ্লেভার্ড ড্রিংকস ও আইস ললি’ এবং তিন লক্ষ পিস লেবেল/প্যাকেট জব্দ করা হয়। সেই সাথে উৎপাদনে ব্যবহৃত অবৈধ ও নন-ফুডগ্রেড রং ও ফ্লেভার জব্দ করা হয় এবং প্রতিষ্ঠানটির সত্ত্বাধিকারী মোঃ শামীম রেজার বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা দায়েরের কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়। একই সাথে কারখানা টি বন্ধ করে দেওয়া হয়। একই অপরাধে মহানগরীর রামচন্দ্রপুর এলাকায় অবস্থিত মেসার্স ক্রিস্টাল এন্টারপ্রাইজ হতে প্রায় ৪০ হাজার পিস ‘আইস ললি’ জব্দ করা হয়। সেই সাথে প্রতিষ্ঠানটির সত্ত্বাধিকারী মোঃ শফিকুল আলমের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা দায়েরের কার্যক্রম গ্রহণ করা হয় এবং কারখানাটি বন্ধ করে দেওয়া হয়। এছাড়া বিসিক শিল্প নগরীতে অবস্থিত জে.কে ফুড প্রোডাক্টস প্রতিষ্ঠানটি বিএসটিআই’র গুণগত মানসনদ গ্রহণ না করে অবৈধভাবে ‘সফট ড্রিংকস পাউডার’ বিক্রয়-বিতরণ করায় এবং মোড়কে/লেবেলে অবৈধভাবে বিএসটিআই এর মানচিহ্ন সম্বলিত মনোগ্রাম ব্যবহার করায় ০৬ কার্টুন ‘সফট ড্রিংকস পাউডার’ জব্দ করা হয় এবং নিয়মিত মামলা দায়েরের কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়। উক্ত সার্ভিল্যান্স অভিযানটি পরিচালনা করেন বিএসটিআই বিভাগীয় কার্যালয়, রাজশাহী এর কর্মকর্তা  মোঃ শরীফ হোসেন ও  প্রকৌশলী জুনায়েদ আহমেদ। জনস্বার্থে বিএসটিআই, রাজশাহীর এধরণের অভিযান নিয়মিতভাবে অব্যাহত থাকবে বলে কর্মকর্তারা জানান। ডেইলি নয়া কণ্ঠ

রাজনীতি ও অপরাজনীতি: বীর মুক্তিযোদ্ধা মমতাজ হুসেন চৌধুরী (এম,এ ঢাবি)

  • প্রকাশিতঃ বুধবার, ১১ অক্টোবর, ২০২৩
  • ১২৭ বার পঠিত

রাজনীতি ও অপরাজনীতি: উপসম্পাদকীয়

বীর মুক্তিযোদ্ধা মমতাজ হুসেন চৌধুরী (এম,এ ঢাবি)

আদিযুগ থেকেই রাজনীতি ও মতাদর্শের ব্যবধান বা দুরত্ব সর্বত্রই কমবেশী বিদ্যমান ছিল । মানব সভ্যতা বিকাশের পুর্বে বিভিন্ন অন্চলের জনগোষ্ঠী গোত্রে গোত্রে বিভাজন হয়ে সমাজে শক্তি প্রতিষ্ঠা বা আধিপত্য বিরাজ করত । এমনকি বনে ভাদরে শক্তিশালী পশুরা রাজত্ব করত , ছোট ও দুর্বল পশুরা ওদের আহারের উপকরন হত অবশ্য এ রীতি পশু সমাজে অদ্যবধি অব্যাহত বৈকি ।
রেনেসাঁর যুগে মানুষের উন্নততর জীবন যাপন ( better living ) বোধ থেকে পারস্পরিক নির্ভরশীলতা ও শ্রদ্বা , সামাজিক বন্ধন সহ নানা আচার প্রতিষ্ঠা যা পরবর্তীতে মুল্যবোধ, প্রথা আকারে সমাদৃত হয় ।মুসলিম সভ্যতার ইতিহাস ও অনেক প্রাচীন । তাছারা বৌদ্ধ , হিন্দু , খ্রীষ্টান ও অন্যান্য বিলিভারদের মুলমন্ত্র ছিল সমাজে সহাবস্থান , সম্মানবোধ , ভাল কাজের আদেশ ও মন্দ কাজের নিষেধ ও সর্বোপরি সৎ বা আদর্শিক জীবন যাপন । আমরা জানি আদিকাল থেকে শয়তান বা ইবলিশ এই আদর্শিক অবস্থান থেকে মানবকুলকে হঠানোর কাজে চ্যালেন্জ হিসেবে কাজ করছে । ফলশ্রুতিতে আদি মানব হযরত আদম আ: ও বিবি হাওয়াকে শয়তানের ধোকার ফলে নিষিদ্ধ ফল খাওয়াতে বেহেস্ত থেকে মর্ত্যের পৃথিবীতে আসতে হলো । এদিকে আর কথা বলতে চাইনা । তবে আধুনিক যুগে এনালগ থেকে ডিজিটাল , স্মার্ট যুগ , চতুর্থ শিল্প বিপ্লব , নারীর ক্ষমতায়ন এসব নিয়ে ও হৈচৈ কম নয় , যা আমাদের প্রজন্মের স্বার্থে এগিয়ে নিতে হবে, এব্যাপারে বাংলাদেশের সফল রাষ্ট্রনায়ক জননেত্রী শেখ হাসিনা এক ধাপ এগিয়ে আছেন বলে বিজ্ঞজনের মতামত ।
মুলকথায় এসে বলতে চাঁই , রাষ্টবিজ্ঞান বা রাজনীতি বিজ্ঞান তার ব্যাখ্যায় রাষ্ট্র গঠন , সমাজ গঠন , বিবর্তন সহ নানা জ্ঞানগর্ভ আলোচনা করেছে যা আমাদের শিক্ষার প্রধান উপাদান । সমাজবিজ্ঞানীরা মানুষের আচার আচরন , শিক্ষা , মুল্যবোধ , সভ্যতা ও পরিপুর্ন জীবনবোধ সম্পর্কে আলোচনা করছেন যা আমাদের জানার বাইরে নয় । সভ্যতার এত সময় পার হয়ে আমরা আজ আধুনিক মানব বিধ্বংসী অস্র নির্মান প্রতিযোগিতা , পরম শক্তিশালী হিসেবে প্রতিষ্ঠা ইত্যাদি অসম দৌড় ঝাপ সমাজ জীবনের কাল হিসেবে দাঁড়িয়েছে । আমরা সবাই আজ শিখছি ও অনুকরন করছি অসম প্রতিযোগিতা ও অর্থ উপার্জন যা করতে গিয়ে নীতি বর্হিভুত কর্মকান্ড হয়ে উঠছে সহজ অবলম্বন । কি সমাজ , কি পরিবার , কি প্রতিষ্ঠান , কি ব্যক্তি , লক্ষ একটি উপরের তলা উঠা , সে কি ষ্টেপ বাই ষ্টেপ নাকি লাফ দিয়ে তা কখনও ভাবতে চাইনি । আমরা সব বলয়ে থাকতে চাই শক্তিধর , সমাজপতি, বাহাদুর , সাধারন মানুষের কাতার ছেরে অনেক লম্বা/উঁচু হাতের অধিকারী । কিন্তু সভ্য রাষ্ট্র এসব উঁচু নীচু সৃষ্টির পক্ষে নয় । এসব সৃষ্টি করেছে ব্যবসায়ী সুলভ মনোভাব যেমন মুক্ত অর্থনীতি , কালো অর্থ উপার্জন , দুর্নীতি আর শেষ সংযোজন অপরাজনীতি । পুজি বিহীন ব্যবসা করার সুযোগ নিতে হলে প্রক্রিয়ার মধ্যে সংযুক্ত হতে হবে । আমরা ঢাকা বিশ্বিবিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের রাজনীতি করেছি , আমি একটি বিভাগের ছাত্রলীগের সভাপতি ছিলাম তাও কেমন সময় , বঙ্গবন্ধু হত্যার পরবর্তী দু:সময়গুলোতে , অর্থ উপার্জন চিন্তা ও করা যায়নি । এসব আত্মপ্রচারে না গিয়ে যা বলতে চাই , ছাত্র রাজনীতি ছিল পডাশুনার পাশাপাশি কিছু আদর্শিক শিক্ষার সুতিকাগার। অন্যায়ের প্রতিবাদ শিখা , আন্দোলন বুঝা , বক্তব্য বুঝা ও বাচনভঙ্গী শিখা , ছাত্রদের উদ্ভুত সমস্যা নিয়ে কথা বলা , সাংগঠনিক আচরন শিখা ও আদর্শিক নেতাদের অনুকরন করা ইত্যাদি ছাত্র রাজনীতির মাধ্যমে রপ্ত করা সহজ ব্যবস্তা বৈকি । কিন্তু না , ৭৫ পরবর্তী প্রেক্ষাপট ও সামরিক শাসকদের রাজনীতি শুরু ছাত্র রাজনীতির কফিনে শেষ পেরেগ পুতে দিল । এই অমানিশার গ্যারাটোপে আজ ও ধুকছে ছাত্র রাজনীতি এমনকি জাতীয় রাজনীতি ।মরহুম প্রেসিড্ন্ট জিয়া বলে গিয়েছিলেন – I will make politics difficult for the politicians and money is no problem , এই দুই বাক্যের বিশ্লেষন ও মর্মবানীর জের ও খেসারত আর কত কাল বইতে হবে জানিনা ।
সহজে রাজনীতিতে ইন /আউট এসব উক্তির ফসল । আমি কোন রাজনীতি বন্ধের পক্ষে নই যদি তা কল্যানমুলক হয় , বরং সুষ্ঠ রাজনীতি চর্চার পরিবেশ বিকাশ চাই ও অবশ্যই অপরাজনীতি রুখে দিতে হবে শুধু আগত প্রজন্মের কথা ভেবে । যেখানে আপনার আমার , আমাদের সকলের সন্তান সন্ততি থাকবে একটি নিরাপদ সমাজ বেষ্টনীর মধ্যে । নিজ স্বার্থেই এহেন কাম্য হওয়া উচিত । কবির ভাষার সমস্বরে বলব , ইতিহাসের পাতা থেকে কলঙ্কীত পৃষ্ঠাগুলো রেখে, চলে আসি কানাডার মিছিলে শ্লোগান শুনাতে , মানুষের জয় হউক , অসত্যের পরাজয়ে খুশী হউক বিশ্বের বিবেক , পলাতক শান্তি যেন ফিরে আসে বাংলার প্রতি ঘরে ঘরে । জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু।

লেখক বাংলাদেশ স্বাধীনতা যুদ্ধে একজন সম্মখ যোদ্ধা

শেয়ারঃ

এই জাতীয় অন্যান্য সংবাদ

রাজশাহী মহানগরীতে বিএসটিআই এর অভিযানে ৩ টি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা।                                                            _____________________________________(২৪ এপ্রিল ) বুধবার  রাজশাহী ব্যুরো বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস এন্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশন (বিএসটিআই) বিভাগীয় কার্যালয়, রাজশাহী’র উদ্যোগে আজ ২৪ এপ্রিল বুধবার রাজশাহী মহানগরীতে একটি সার্ভিল্যান্স অভিযান পরিচালিত হয়। এতে বিএসটিআই’র গুণগত মানসনদ গ্রহণ না করে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে শিশুখাদ্য‘আর্টিফিশিয়াল ফ্লেভার্ড ড্রিংকস ও আইস ললি’ উৎপাদন ও বিক্রয়-বিতরণ করায় এবং মোড়কে/লেবেলে অবৈধভাবে বিএসটিআই এর মানচিহ্ন সম্বলিত মনোগ্রাম ব্যবহার করায় সিটি হাটের পশ্চিমে ওবাই এর মোড় সংলগ্ন মেসার্স তৃপ্তি কেমিক্যাল এন্ড ফুড ইন্ডাস্ট্রিজ হতে প্রায় ২০ হাজার পিস ‘আর্টিফিশিয়াল ফ্লেভার্ড ড্রিংকস ও আইস ললি’ এবং তিন লক্ষ পিস লেবেল/প্যাকেট জব্দ করা হয়। সেই সাথে উৎপাদনে ব্যবহৃত অবৈধ ও নন-ফুডগ্রেড রং ও ফ্লেভার জব্দ করা হয় এবং প্রতিষ্ঠানটির সত্ত্বাধিকারী মোঃ শামীম রেজার বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা দায়েরের কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়। একই সাথে কারখানা টি বন্ধ করে দেওয়া হয়। একই অপরাধে মহানগরীর রামচন্দ্রপুর এলাকায় অবস্থিত মেসার্স ক্রিস্টাল এন্টারপ্রাইজ হতে প্রায় ৪০ হাজার পিস ‘আইস ললি’ জব্দ করা হয়। সেই সাথে প্রতিষ্ঠানটির সত্ত্বাধিকারী মোঃ শফিকুল আলমের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা দায়েরের কার্যক্রম গ্রহণ করা হয় এবং কারখানাটি বন্ধ করে দেওয়া হয়। এছাড়া বিসিক শিল্প নগরীতে অবস্থিত জে.কে ফুড প্রোডাক্টস প্রতিষ্ঠানটি বিএসটিআই’র গুণগত মানসনদ গ্রহণ না করে অবৈধভাবে ‘সফট ড্রিংকস পাউডার’ বিক্রয়-বিতরণ করায় এবং মোড়কে/লেবেলে অবৈধভাবে বিএসটিআই এর মানচিহ্ন সম্বলিত মনোগ্রাম ব্যবহার করায় ০৬ কার্টুন ‘সফট ড্রিংকস পাউডার’ জব্দ করা হয় এবং নিয়মিত মামলা দায়েরের কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়। উক্ত সার্ভিল্যান্স অভিযানটি পরিচালনা করেন বিএসটিআই বিভাগীয় কার্যালয়, রাজশাহী এর কর্মকর্তা  মোঃ শরীফ হোসেন ও  প্রকৌশলী জুনায়েদ আহমেদ। জনস্বার্থে বিএসটিআই, রাজশাহীর এধরণের অভিযান নিয়মিতভাবে অব্যাহত থাকবে বলে কর্মকর্তারা জানান। ডেইলি নয়া কণ্ঠ

২০২৩ © সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Developed By UNIK BD