1. sheikhrobirobi008@gmail.com : dailynayakontho :
  2. admin@dailynayakontho.com : unikbd :
মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ১১:২০ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
রাজশাহীর গোদাগাড়ী ও তানোর উপজেলায় ৮ চেয়ারম্যান প্রার্থী। ডেইলি নয়া কণ্ঠ আক্কেলপুর উপজেলা নির্বাচনে নমিনেশন দাখিল করলেন  মোকসেদ আলী মাস্টার। নয়া কণ্ঠ মনোহরদীতে মাদক সচেতনতা ও পূর্নবাসন কেন্দ্র(প্রস্তাবিত) স্থাপন উপলক্ষে আলোচনা ও পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত। ডেইলি নয়া কণ্ঠ মনোহরদী খিদিরপুর মনতলা আশরাফিয়া বালিকা দাখিল মাদ্রাসা মাঠে ঐতিহ্যবাহী কাছি টানা ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত। ডেইলি নয়া কণ্ঠ নরসিংদীতে ইউপি সদস্য রুবেলকে গুলি ও জবাই করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। ডেইলি নয়া কণ্ঠ রূপগঞ্জে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ব্যবসায়ীর ওপর সন্ত্রাসী হামলা। ডেইলি নয়া কণ্ঠ মেহেরপুরে অরণি চিলড্রেনস থিয়েটারের পহেলা বৈশাখ উদযাপন। ডেইলি নয়া কণ্ঠ গাংনীর সাহারবাটীতে নানা আয়োজনে বর্ষবরণ উৎসব পালিত। ডেইলি নয়া কণ্ঠ ত্রিশালে প্রভাবশালীর নির্যাতনের শিকার বিধবা নারীর সাংবাদিক সম্মেলন। ডেইলি নয়া কণ্ঠ নানা আয়োজনের মধ্যে দিয়ে তানোরে পালিত হয়েছে পহেলা বৈশাখ। ডেইলি নয়া কণ্ঠ

রাজনীতিতে প্রতিযোগীতা বনাম প্রতিদ্বন্দ্বীতা : উপসম্পাদকীয়

  • প্রকাশিতঃ মঙ্গলবার, ৩ অক্টোবর, ২০২৩
  • ৮৫ বার পঠিত

 

উপসম্পাদকীয়

রাজনীতিতে প্রতিযোগীতা বনাম প্রতিদ্বন্দ্বীতা

লেখক বীর মুক্তিযোদ্ধা মমতাজ হুসেন চৌধুরী (এম,এ ঢাবি)

রাজনীতি একটি পরম চর্চার ক্ষেত্র যা মানুষের সামাজিক দায়বদ্বতা, সহনশীলতা , মানবিক গুণাবলীর বিকাশ ঘঠিয়ে সর্বোপরি একজন সঠিক দলপতি বা নেতা সমাজ বা রাষ্ট্রে আবির্ভুত হয় ।চীনের মাও সেতুং যথার্থ বলেছিলেন – শত পদ্ম ফুল ফুটতে দাও । যে কোন গনতান্ত্রিক সংগঠনে যোগ্যতার মাপকাটিতেই সামান্য কর্মী থেকে দলের শীর্ষ অবস্তানে চলে যান , পরিনত হন একজন ত্যাগী মহাননেতা হিসেবে যেমনটি দেখেছি স্বাধীনতার স্তপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনে ।
কারা অন্তরীন অবস্তায় ১৯৪৯ সনে আওয়ামী মুসলিম লীগের জন্মলগ্নে প্রথম যুগ্মসচিব নির্বাচিত হন, নেতৃত্বের বলিষ্টতা , সাহসিকতা ও মেধা বিবেচনায় দলের পরবর্তী কাউন্সিলে সাধারন সম্পাদক ও আওয়ামী লীগের সভাপতি নির্বাচিত হয়ে ছয় দফা দাবী উথাপনের মাধ্যমে হয়ে উঠেন বাংলার মানুষের নয়ন মনি , উনি বলেছিলেন ছয় দফা মানে এক দফা , একটু ঘুরিয়ে বললাম মাত্র ।যা ম্যাগনাকার্টা হিসেবে বিবেচিত । ৬৯ এ বঙ্গবন্ধু , পরবর্তীতে জাতির পিতা । ৭ই মার্চের ডাক , স্বাধীনতার ঘোষনা সব তৈরী করেই উনি পাকিস্তানীদের হাতে বন্দী হন । দীর্ঘ নয় মাস রক্তক্ষয়ী মুক্তিযুদ্বের ফসল আমাদের স্বাধীনতা , অসাম্প্রদায়িক জাতি রাষ্ট্র সৃষ্টি।

আমরা সবাই পরের ইতিহাসটি জানি । ৭৫ এর আগষ্টে জাতির জনক সহ তার পরিবারের সদস্যদের নির্মমভাবে হত্যার পর , জাতীয় চার নেতা হত্যায় আমরা মুক্তিযুদ্বের চেতনায় বিশ্বাসীরা আদর্শিক আলো বিহীন হয়ে পড়ি । ১৯৮১ সালে ১৭মে বিরান ভুমিতে জাতির জনকের কন্যা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা নির্বাসিত প্রবাস জীবন থেকে দলের সভাপতি পদে নির্বাচিত হওয়ার পর দেশে ফেরত আসেন ও দলের হাল ধরেন । উল্লেখ্য আমি বাংলাদেশ বিমানে ডিউটিরত অবস্তায় এই ফ্লাইটটি গ্রাউন্ডে রিসিভ করি ও প্লেনের দরজা খুলে প্রিয় নেত্রীকে নামিয়ে আনি যা আমার জীবনে বিরল পাওনার স্বাক্ষর ।এ মাসেই ৩১ তারিখে সামরিক সরকার প্রধান জেনারেল জিয়া সেনা বিবাদে নিহত হন । বিচারপতি সাত্তার সাবের হাত থেকে ক্ষমতা নেয় সেনা শাসক জেনারেল এরশাদ ॥
আমি যা বলতে চাই , পরিবারের সকল সদস্যদের হারিয়ে মাননীয় নেত্রী দেশে এসেই যা যা ইন্টারফেস করলেন । দলের মধ্যে ভাঁঙ্গন মহিউদ্দিন সাব ও রাজ্জাক ভাইয়ের সেই বাকশাল , জাতীয় ছাত্রলীগ সহ কতগুলো সাংগঠিক ঝঞ্জাল সামনে উঠে আসলো । উনি দৃঢ়তার সাথে সব মোকাবেলা করে দলকে সংগঠিত করা , ১৯৯৬এর নির্বাচনে সরকার গঠন সহ জাতিকে আলোর পথ দেখান । পিতার হাতে স্বাধীনতা আর কন্যার হাতে উন্নয়ন যা বাস্তবায়ন হলো , ডিজিটাল বাংলাদেশ থেকে স্মার্ট বাংলাদেশে যাব । সুনীল অর্থনীতি সচল , ডেল্টা প্লান , ভিশন উপস্তাপন ,করোনা মোকাবেলা , চলমান বৈষয়িক প্রভাব মোকাবেলী সহ নানা উদ্ভাবনী কাজ নেত্রীকে অনেক উচ্চতায় নিয়ে গেছে । উনি এখন বিশ্বনেত্রী । নিজের পায়ে ভর করে দাঁড়ানোর শক্তি কোমড়ে আছে ।
মোদ্দাকথা প্রতিযোগিতা থাকবে তার মানে এই নয় কাউকে প্রান দিতে হবে । জাতির জনকের প্রাননাশ , নেত্রীর প্রাননাশের অবিরাম প্রয়াস , ২১ আগষ্ট গ্রেনেড হামলা এসব কিসের আলামত , কেন করছে , ওরা কারা !

মুক্তিযুদ্বের পরাজিত শক্তি পাকিস্তানীদের প্রেতাত্মারা ,পাকী প্রেমীরা এসব সর্বনাশা খেলায় মত্ত । আমাদের চোখ কান খোলা রাখতে হবে , ঐক্য ধরে রাখতে হবে । নেতা হওয়ার জন্য আমরা যেন জননেত্রীর কঠিন অর্জনগুলো ম্লান না করি । দলে শুদ্ধি অভিযান অব্যাহত ভাবে চালাতে হবে । যারা দলে সুবিধা বন্চিত , ত্যাগী , সুশিক্ষিত নানা কৌশলে ওদের ল্যাং মেরে পিছনে ফেলার যে প্রতিযোগীতা চলছে তা দলের স্বার্থেই বন্ধ করতে হবে । দলে সুবিধা বন্চিতদের তালিকা প্রনয়নের জন্য এখন দরকার শক্তিশালী সার্চ কমিটি , অনুপ্রবেশকারী ,লুঠেরাদের গুডবাই জানাতে হবে । survival of the fittest হউক নেতা নির্বাচনের প্রধান সোপান , তবে জননেত্রী শেখ হাসিনা সে পথেই হাঁটছেন বলে নীতিনির্ধারকদের অভিমত । সাধু সাবধান , জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু ,

লেখক বাংলাদেশ স্বাধীনতা যদ্ধে একজন সম্মখ যোদ্ধা

শেয়ারঃ

এই জাতীয় অন্যান্য সংবাদ
২০২৩ © সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Developed By UNIK BD