1. sheikhrobirobi008@gmail.com : dailynayakontho :
  2. admin@dailynayakontho.com : unikbd :
শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ০২:১২ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
মেহেরপুরে কবুতর উড়ানো প্রতিযোগিতা ও পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত। ডেইলি নয়া কণ্ঠ নরসিংদীর মনোহরদীতে মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী’র উপর নির্যাতন ও প্রতারণা। ডেইলি নয়া কণ্ঠ রূপগঞ্জে গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতীক ফুটবল টুর্নামেন্ট’র শুভ উদ্বোধন। ডেইলি নয়া কণ্ঠ রূপগঞ্জে চুক্তি ভঙ্গ করে পাইকারি কাঁচাবাজার ও ফলের আড়ত দখলে নেওয়ার পাঁয়তারার অভিযোগ। ডেইলি নয়া কণ্ঠ তানোরে গরু মোটাতাজা করণে নিষিদ্ধ ঔষধ স্টেরয়েডের রমরমা ব্যবসা। ডেইলি নয়া কণ্ঠ হারিয়ে যাওয়া শিশুকে তার অভিভাবকের কাছে ফিরিয়ে দিলো আর এম পি ডিবি পুলিশ। ডেইলি নয়া কণ্ঠ রাজশাহী মহানগরীতে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে প্রতারণা , যুবক গ্রেফতার। ডেইলি নয়া কণ্ঠ কাটাখালী থানার অভিযানে পৃথক দুটি মামলার সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেফতার। ডেইলি নয়া কণ্ঠ বগুড়া সান্তাহারে বিকাশ এজেন্ট ব্যবসায়ীর পথরোধ ৩ লক্ষ্য টাকা ছিনতাই। ডেইলি নয়া কণ্ঠ মেহেরপুরে কচু ক্ষেতে বিষ প্রয়োগ দুর্বৃত্তের। ডেইলি নয়া কণ্ঠ

অপারেশন থিয়েটারে এ কেমন ‘সেলফিবাজি’। নয়া কণ্ঠ

  • প্রকাশিতঃ রবিবার, ২৭ আগস্ট, ২০২৩
  • ৯২ বার পঠিত

 

অপারেশন থিয়েটারে এ কেমন ‘সেলফিবাজি’

আমানুল্লাহ আমান
রাজশাহী প্রতিনিধি:

রাজশাহীতে উদয়ন নার্সিং কলেজের শিক্ষার্থীদের অপেশাদার আচরণ নিয়ে শুরু হয়েছে সমালোচনা। ক্লিনিক্যাল প্র্যাকটিসে গিয়ে এক প্রসূতি নারীর ডেলিভারির অপারেশন চলাকালে অপারেশন থিয়েটারের ভেতরেই মোবাইলে ‘সেলফিবাজি’ শুরু করেন তারা। এমনকি ছবিগুলো পরবর্তীতে কলেজটির অফিসিয়াল ফেসবুক আইডিতে পোস্টও করা হয়। এ নিয়ে শুরু হয়েছে বিতর্ক।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, গত সপ্তাহে বিএসসি ইন নার্সিং সাইন্স কোর্সের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থীদের ক্লিনিক্যাল প্র্যাকটিসে পাঠায় উদয়ন নার্সিং কলেজ কর্তৃপক্ষ। এ ধাপে নারী ও শিশুদের সরকারি সেবাদান কেন্দ্র নগর মাতৃসদনে ক্লিনিক্যাল প্র্যাকটিস করানো হয় তাদের। কিন্তু প্র্যাকটিসে গিয়ে মোবাইলে সেলফিবাজিতে মত্ত হয়ে ওঠেন ৫ জন শিক্ষার্থী। এক প্রসূতি নারীর ডেলিভারির অপারেশন চলাকালে অপারেশন থিয়েটারের ভেতরেই চিকিৎসকদের সামনে রীতিমতো সেলফি তুলতে থাকেন তারা।

প্রসূতির আপত্তিকর জায়গার দৃশ্যও ওঠে ছবিতে। একজন বাচ্চাকে কোলে নিয়ে ছিলেন। এ সময় রোগীকেও শোয়ানো অবস্থায় তাকে ক্যামেরার দিকে তাকাতে বাধ্য করা হয়। তিনি ওই অবস্থাতেই নার্সিং শিক্ষার্থীদের ক্যামেরার দিকে তাকান। এমনকি পরে ছবিগুলো উদয়ন নার্সিং কলেজের অফিসিয়াল ফেসবুকে আপলোড করা হয়। ক্যাপশনে লেখা হয়, ‘আজ নগর মাতৃসদনে উদয়ন নার্সিং কলেজের শিক্ষার্থীরা প্রশিক্ষন গ্রহণ করেন এবং সঙ্গে ছিলেন ডাক্তার রোকসানা পারভিন।’

তবে চিকিৎসকরা বিষয়টিকে গুরুত্বের সাথে না নিলেও রোগী ও তাদের স্বজনরা এ নিয়ে তুলেছেন আপত্তি। তাদের ভাষ্য, নার্সিং শিক্ষার্থীদের এসব কাণ্ডে বেশ বিব্রত হতে হয় তাদের। এ ধরণের কাজ করতে বারণ করলে উল্টো দুর্ব্যবহার করেন এসব শিক্ষার্থী। রোগীর স্বজনরা জানান, এমন কাণ্ড নার্সিং পেশারও মর্যাদাহানি। রোগীর অপারেশন চলাকালে এভাবে ছবি তোলা কোনো ‘সুস্থ’ মানুষের কাজ হতে পারে না। যেকোন জায়গায় ছবি তোলার ব্যাপারে কর্তৃপক্ষের সজাগ দৃষ্টি রাখা দরকার।

এ বিষয়ে উদয়ন নার্সিং কলেজের অধ্যক্ষ মাহফুজা খানমের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তিনি সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে রাজি হননি। পরে আব্দুল্লাহ শৈকত নামে একজন নিজেকে ওই কলেজের এডমিশন কর্মকর্তা পরিচয়ে কল দিয়ে বলেন, ‘ছবি তোলার বিষয়টি ম্যাম জানেন না।’ অবশ্য কিছুক্ষণ পরই ছবিগুলো কলেজটির ফেসবুক আইডি থেকে ডিলিট করে দেয়া হয়।

শেয়ারঃ

এই জাতীয় অন্যান্য সংবাদ
২০২৩ © সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Developed By UNIK BD