1. sheikhrobirobi008@gmail.com : dailynayakontho :
  2. admin@dailynayakontho.com : unikbd :
মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ০১:৩৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
কাটাখালী থানার অভিযানে ছিনতাই মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি গ্রেফতার। ডেইলি নয়া কণ্ঠ বায়েক,পুটিয়া সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে হাসান নামের এক বাংলাদেশি যুবক নিহত। ডেইলি নয়া কণ্ঠ রাজশাহীতে ছবি তোলার অপরাধে সাংবাদিক গ্রেফতার, অতঃপর মুক্তি। ডেইলি নয়া কণ্ঠ গাংনী উপজেলা নির্বাচনে বিএনপির একসহ ১০ চেয়ারম্যান প্রার্থী। ডেইলি নয়া কণ্ঠ বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে নেত্রকোনায় বর্ণাঢ্য র‍্যালী আলোচনা সভা দোয়া মাহফিল ও কেক কাটা অনুষ্ঠিত। ডেইলি নয়া কণ্ঠ একজন মানবতার ফেরিওয়ালা আরমান মোল্লা। ডেইলি নয়া কণ্ঠ পোরশা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন যারা। ডেইলি নয়া কণ্ঠ গোমস্তাপুরে সারে ৬ হাজার কৃষক পেলেন সার ও বীজ। ডেইলি নয়া কণ্ঠ শাহমখদুম থানার অপহরণ মামলার ২ আসামি গ্রেফতার। ডেইলি নয়া কণ্ঠ কলেজ শিক্ষার্থীর ডান চোখ উপড়ে ফেলার পর বাম চোখ উপড়ে ফেলার হুমকি প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন। ডেইলি নয়া কণ্ঠ

রাজবাড়ী সদর শহিদপুরে মায়ের সঙ্গে অভিমান করে যুবকের আত্মহত্যা। নয়া কণ্ঠ

  • প্রকাশিতঃ শুক্রবার, ২৫ আগস্ট, ২০২৩
  • ১০৮ বার পঠিত

 

রাজবাড়ী সদর শহিদাপুরে মায়ের সঙ্গে অভিমান করে যুবকের গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা

রাজবাড়ী প্রতিনিধিঃ ছাব্বির হোসেন বাপ্পি,

রাজবাড়ীতে মায়ের সঙ্গে অভিমান করে আব্দুল্লাহ বিশ্বাস (১৮) নামে এক যুবক গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।
শুক্রবার (২৫ আগস্ট) দুপুরে সদর উপজেলার শহীদ ওহাবপুর ইউনিয়নের নিমতলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আব্দুল্লাহ ওই গ্রামের মৃত আমিরুল ইসলামের ছেলে।
স্থানীয় ইউপি সদস্য মাহাবুব হোসেন লিটন জানান, ১৮ বছর আগে রাস্তায় ঘুরে বেড়ানো অন্তঃসত্ত্বা এক পাগলীর প্রসব ব্যথা উঠলে নিমতলা গ্রামের আমিরুল ইসলামের স্ত্রী আলেয়া বেগম তার বাড়িতে পাগলির সন্তান প্রসব করান। ওই পাগলির সন্তান আব্দুল্লাহ। সন্তান প্রসবের পর পাগলি তার মতো চলে যান। ওই সময় থেকেই নিজের ৫ মেয়ের সঙ্গে আব্দুল্লাহকে নিজের ছেলে হিসেবেই লালনপালন করে আসছেন আলেয়া বেগম। আব্দুল্লাহ নামটিও তারই দেয়া।
তিনি আরও জানান, ১৬ বছর আগে আলেয়ার স্বামী আমিরুল ইসলাম মারা যান। জুট মিলে চাকরি করে ৫ মেয়েকে বড় করে বিয়ে দিয়েছেন আলেয়া। আব্দুল্লাহকেও সপ্তম শ্রেণি পর্যন্ত পড়িয়েছেন। ২০২০ সালে করোনার সময় আব্দুল্লাহ পড়ালেখা বাদ দিয়ে দেয়। এরপর থেকে সে কোনো কাজকর্ম না করে ঘুরে বেড়াত। এজন্য শুক্রবার সকালে আলেয়া আব্দুল্লাহকে বকাবকি করেন। এতে অভিমান করে সে গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করে।
আলেয়া বেগম বলেন, ‘আমি অনেক কষ্ট করে জুট মিলে কাজ করে আব্দুল্লাহকে মানুষ করেছি। ৫ মেয়েকে বিয়ে দেয়ার পর বাড়িতে আমি আর আব্দুল্লাহই থাকতাম। ও আমার বেঁচে থাকার অবলম্বন ছিল। পড়ালেখা বাদ দিয়ে এলাকার ছেলেপেলের সঙ্গে সারাদিন ঘুরে বেড়ায়, কোনো কাজকর্ম করে না। তাই সকালে একটু রাগারাগি করেছি। সকাল ১১টার দিকে ওকে ভাত খেতে দিয়ে আমি বাড়ির পাশে পাট তুলতে যাই। দুপুর আড়াইটার দিকে বাড়ি এসে দেখি দরজা বন্ধ। পরে দরজার ফাঁক দিয়ে দেখি আমার ছেলে ঘরের আড়ার সঙ্গে গলায় রশি দেয়া অবস্থায় ঝুলছে।’
রাজবাড়ীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. ইফতেখারুজ্জামান জানান, প্রাথমিক তদন্তে আমরা নিশ্চিত হয়েছি যে ছেলেটি গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেছে। এছাড়া তার পরিবারেরও কোনো অভিযোগ নেই। ফলে পরিবারের সদস্যদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে মরদেহ ময়নাতদন্ত ছাড়াই স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় রাজবাড়ী সদর থানায় একটি অপমৃত্যু (ইউডি) মামলা দায়ের করা হবে বলেও জানান তিনি।

শেয়ারঃ

এই জাতীয় অন্যান্য সংবাদ
২০২৩ © সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Developed By UNIK BD