1. sheikhrobirobi008@gmail.com : dailynayakontho :
  2. admin@dailynayakontho.com : unikbd :
শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১২:৫৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
মেহেরপুরে কবুতর উড়ানো প্রতিযোগিতা ও পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত। ডেইলি নয়া কণ্ঠ নরসিংদীর মনোহরদীতে মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী’র উপর নির্যাতন ও প্রতারণা। ডেইলি নয়া কণ্ঠ রূপগঞ্জে গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতীক ফুটবল টুর্নামেন্ট’র শুভ উদ্বোধন। ডেইলি নয়া কণ্ঠ রূপগঞ্জে চুক্তি ভঙ্গ করে পাইকারি কাঁচাবাজার ও ফলের আড়ত দখলে নেওয়ার পাঁয়তারার অভিযোগ। ডেইলি নয়া কণ্ঠ তানোরে গরু মোটাতাজা করণে নিষিদ্ধ ঔষধ স্টেরয়েডের রমরমা ব্যবসা। ডেইলি নয়া কণ্ঠ হারিয়ে যাওয়া শিশুকে তার অভিভাবকের কাছে ফিরিয়ে দিলো আর এম পি ডিবি পুলিশ। ডেইলি নয়া কণ্ঠ রাজশাহী মহানগরীতে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে প্রতারণা , যুবক গ্রেফতার। ডেইলি নয়া কণ্ঠ কাটাখালী থানার অভিযানে পৃথক দুটি মামলার সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেফতার। ডেইলি নয়া কণ্ঠ বগুড়া সান্তাহারে বিকাশ এজেন্ট ব্যবসায়ীর পথরোধ ৩ লক্ষ্য টাকা ছিনতাই। ডেইলি নয়া কণ্ঠ মেহেরপুরে কচু ক্ষেতে বিষ প্রয়োগ দুর্বৃত্তের। ডেইলি নয়া কণ্ঠ

যেভাবে শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তির টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে প্রতারক চক্র

  • প্রকাশিতঃ রবিবার, ২১ আগস্ট, ২০২২
  • ৭৯ বার পঠিত

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তির টাকা নিশ্চিত করার নাম করে বিকাশের মাধ্যমে তাদের হাজার হাজার টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে একটি প্রতারক চক্র।

বোর্ড কর্মকর্তা ও শিক্ষা কর্মকর্তার নাম ভাঙিয়ে চক্রটি এ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

জানা গেছে, গোয়ালন্দ উপজেলার দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের সরকারিভাবে দেওয়া উপবৃত্তির টাকা হাতিয়ে নিতে বেশ কিছুদিন ধরে একটি প্রতারক চক্র কাজ করছে।

এর অংশ হিসেবে সম্প্রতি কলেজপর্যায়ে উপবৃত্তিপ্রাপ্তদের প্রকাশিত তালিকা ধরে বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থীর কাছ থেকে তারা টাকা হাতিয়ে নেয়। এক্ষেত্রে তারা শিক্ষা বোর্ডের কর্মকর্তা ও উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তার পরিচয়ে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মোবাইল ফোনে বিভিন্ন নম্বর থেকে শিক্ষার্থীদের নাম-ঠিকানা ও বাবা-মায়ের নাম এমনকি কলেজের ক্লাস রোল পর্যন্ত ঠিকঠাক বলে।

স্থানীয় আব্দুল হালিম মিয়া কলেজের অন্তত ২০-২৫ জন শিক্ষার্থী তাদের উপবৃত্তির টাকাসহ তাদের বিকাশে থাকা অন্য টাকাও খুইয়েছে।

আবদুল হালিম মিয়া কলেজের শিক্ষার্থী মুক্তার হোসেন বলেন, কয়েক দিন আগে শিক্ষা বোর্ডের কর্মকর্তা পরিচয়ে এক ব্যক্তি আমাকে জানান, আমি উপবৃত্তির ২৪ শত টাকা পেয়েছি। তিনি মোবাইল ফোনে আমার নাম, বাসার ঠিকানা, শ্রেণি রোল সবকিছু ঠিক ঠাক বলেন। তারপর বলেন, তোমার মোবাইলে একটি নম্বর যাবে সেই সেটি আমাকে তাড়াতাড়ি জানাও। তারপর টাকা তোমার নম্বরে চলে যাবে। সব কিছু ঠিকঠাক বলাতে আমার বিশ্বাস চলে আসে এবং আমি তার কথার ফাঁদে পড়ে আমার বিকাশের পিন নম্বর বলে দেই। সঙ্গে সঙ্গে আমার মোবাইল থেকে ২৫০০ টাকা উধাও হয়ে যায়।

একই কলেজের ছাত্রী মহিবা আক্তার, ঝর্ণা খাতুনসহ আরও কয়েকজন জানান, প্রতারক চক্রটি তাদের বেশকিছু ছাত্রছাত্রীর টাকা এভাবে পিন নম্বর নিয়ে মেরে দিয়েছে।

এ ব্যাপারে আব্দুল হালিম কলেজের অধ্যক্ষ বিলকিস আক্তার বলেন, আসলে ব্যাপারটি বেশ দুঃখজনক। যারা এ প্রতারণা করেছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া উচিত।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মাসুদুর রহমান বলেন, বিষয়টি আমার জানা ছিল না। কলেজের অধ্যক্ষের মাধ্যমে বিষয়টি জানতে পারি। এ বিষয়ে ছাত্রছাত্রীদের আরও সতর্ক থাকা উচিত ছিল।

শেয়ারঃ

এই জাতীয় অন্যান্য সংবাদ
২০২৩ © সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Developed By UNIK BD